প্রতিদিন বিনামূল্যে মক টেস্ট ও বিভিন্ন ধরণের নোটস-এর জন্য আমাদের টেলিগ্রাম গ্রুপ ও ফেসবুক পেজে যুক্ত হয়ে যাও । 


Current AffairsCurrent Topics

টেস্ট ক্রিকেটের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন নিউজিল্যান্ড

New Zealand clinch the inaugural World Test Championship title

টেস্ট ক্রিকেটের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন নিউজিল্যান্ড

আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ভারতকে ৮ উইকেটে হারিয়ে টেস্ট ক্রিকেটের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হল নিউজিল্যান্ড ।

১ আগস্ট ২০১৯ সালে অস্ট্রেলিয়া বনাম ইংল্যান্ডের এসেজের মাধ্যমে শুরু হওয়া আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ২০১৯-২১ এর পরিসমাপ্তি ঘটল ইংল্যান্ডের সাউদাম্পটনের এজিয়াস বোল স্টেডিয়ামে ।
৯ টি দেশ নিয়ে হওয়া এই টুর্নামেন্টের ফাইনালে মুখোমুখি হয় পয়েন্ট তালিকায় প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে থাকা ভারত ও নিউজিল্যান্ড । বিরাট কোহলির অধীনে আইসিসি -র কোনও বড় টুর্নামেন্ট এখনও জিততে পারেনি ভারতীয় ক্রিকেট দল । আশা ছিল, বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে সেই ব্যর্থতা হয়ত মুছে ফেলতে পারবেন কোহলি। কিন্তু,নিউজিল্যান্ডের কাছে ফাইনালে পরাজয়ের ফলে সেই স্বপ্ন অধরাই থেকে গেল। বৃষ্টির কারণে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের দুই দিন (প্রথম দিন ও চতুর্থ দিন) একটি বলও গড়ায়নি। মাঝে দুই দিন খেলা হলেও পুরো দিনেরটা শেষ করা যায়নি। ধারণা ছিল, টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম ফাইনালটি নিষ্প্রাণ ড্র’তেই নিষ্পত্তি হবে। কিন্তু  বৃষ্টির বাধা টপকে ষষ্ঠ দিন, মানে রিজার্ভ ডের শেষ বিকেলে নিষ্পত্তি ঘটে ম্যাচের । সেখানে প্রথম টেস্টের বিশ্বকাপ জিতে  জয়ের হাসি নিউজিল্যান্ডের।

দেখে নাও : ফরাসি ওপেন ২০২১ জিতলেন জকোভিচ

১৮-২২ তারিখে ইংল্যান্ডের সাউদাম্পটনে ছিল ফাইনাল ম্যাচ । রিজার্ভ ডে হিসেবে রাখা হয় ২৩ শে জুন । বৃষ্টির জন্যে প্রথম দিন একটি বল ও খেলা হয়নি । খেলা শুরু হয় ১৯ এ জুন । টসে জিতে বোলিংয়ের  সিদ্ধান্ত নেয় উইলিয়ামসনের নেতৃত্বে থাকা নিউজিল্যান্ডের দল ।

ইংল্যান্ডের মেঘলা আবহাওয়ার কথা মাথায় রেখে স্পিনার ছাড়াই মাঠে নামে কিউই দল। কঠিন পরিস্থিতিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা  ভালোই করেছিল ভারতের ওপেনাররা। রোহিত ও গিলের জুটি প্রথম উইকেটের জন্য তোলেন ৬২ রান ।  এরপর দুর্দান্ত বোলিং করে রোহিত শর্মাকে ফিরিয়ে দেন জেমিসন।  বিরাট কোহলি (৪৪) ও আজিঙ্কা রাহানের (৪৯) ব্যাটে ভর করে ভারত প্রথম ইনিংসে ২১৭ রান করে । নিউজিল্যান্ডের তরফ থেকে ৫ উইকেট নেন কাইল জেমিসন। জবাবে ব্যাট  করতে নেমে ডেভিড কনওয়ে এর দুর্দান্ত ৫৪ রান,অধিনায়ক কেনের ৪৯ রান এবং নিন্ম ভাগে সাউদি ও জেমিসনের ৩০ ও ২১ রানের দরুন মোট ২৪৯ রান করে ৩২ রানের লিড নেয় নিউজিল্যান্ডের দল। ভারতের তরফ থেকে মোহাম্মদ সামি সর্বোচ্চ ৪ টি উইকেট নেন ।

দেখে নাও : চ্যাম্পিয়নস লিগ(Champions League) চ্যাম্পিয়ন হল চেলসি

দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামা ভারতকে ১৭০ রানে অলআউট করে নিউজিল্যান্ড। প্রথম ইনিংসের লিড থাকায় জয়ের জন্য কিউইদের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় মাত্র ১৩৯ রান। হাতে ছিল ৫৩ ওভার । পঞ্চম দিনের শেষে ২ উইকেটের বিনিময়ে ৬৪ রানে খেলা শেষ করে ভারতীয় দল। ক্রিজে ছিলেন অধিনায়ক কোহলি ও পূজারা। বৃষ্টির কারণে টেস্টের দুদিন ভেস্তে গেলে ম্যাচ গড়ায় রিজার্ভ ডে তে । সেদিন ব্যাট করতে নেমে  ৪৩ ওভারে ৮ উইকেটের বিনিময়ে মাত্র  ১০৬ রান করে ভারত । মোট ১৭০ রানে শেষ হয়ে যায় ভারতের দ্বিতীয় ইনিংস। ঋষভ পন্থ ছাড়া ভারতের আর কোনও ব্যাটসম্যানই সেভাবে লড়াই করতে পারেননি। তরুণ উইকেটকিপার ও বাঁ হাতি ব্যাটসম্যান পন্থ ৮৮ বলে চারটি বাউন্ডারির সাহায্যে করেন ৪১ রান। কিন্তু তাঁকে কেউই সেভাবে সঙ্গত করতে পারেননি। দ্বিতীয় ইনিংসে ভারতের তারকা ওপেনার রোহিত শর্মা করেন ৩০ রান। চুড়ান্ত ভাবে বার্থ হন কোহলি,গিল ,রাহানে ও পূজারা। কিউই পেসারদের মধ্যে সাউদি সর্বোচ্চ ৪ টি ও বোল্ট ৩ টি উইকেট নেন। জেমিসনের খাতায় ছিল ২ টি উইকেট। অপর উইকেটটি নেন  ওয়াগনার।

১৩৯ রান তারা করতে নেমে ৪৪ রানে দুই উইকেট হারিয়ে ফেলে নিউজিল্যান্ড।ভারতের হয়ে জোড়া উইকেট নেন অভিজ্ঞ অফস্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন। তিনি ফিরিয়ে দেন নিউজিল্যান্ডের দুই ওপেনার টম ল্যাথাম (৯) ও ডেভন কনওয়েকে (১৯)। অশ্বিনের বোলিংয়ে  ভারতের ক্ষীণ সম্ভাবনা জেগে উঠলেও  কিউই অধিনায়ক উইলিয়ামসন ও রস টেইল মিলে ভারতের জয়ের  সম্ভাবনাকে সত্যি হতে দিলেন না। অধিনায়কোচিত অর্ধশতরান করে অপরাজিত থেকে দলকে টেস্টে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন করলেন কেন উইলিয়ামসন। তাঁর সঙ্গ দেন অভিজ্ঞ তারকা ব্যাটসম্যান রস টেলর।  কেইন করেন ৫২ রান। রস টেইলর করেন ৪৭ রান। ৯৫ রানের পার্টনারশিপ করে দুজনেই শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন, । দলগত দুর্দান্ত পারফমেন্সের জেড়ে  বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের মুকুট পরে নিউজিল্যান্ড।

কোহলির উইকেট নিয়ে উচ্ছ্বাস ম্যাচের সেরা জেমিসনের

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ভারত: প্রথম ইনিংস -৯২.১ ওভারে  ২১৭ (রাহানে ৪৯ ; কাইল জেমিসন ৫/৩১ ) ।  দ্বিতীয় ইনিংসে ৭৩ ওভারে ১৭০ (পন্থ ৪১; সাউদি ৪/৪৮) ।

নিউজিল্যান্ড: ৯৯.২ ওভারে ২৪৯(কনওয়ে ৫৪ ; মোহাম্মদ সামি ৪/৭৬) ।  দ্বিতীয় ইনিংসে ৪৫.৫ ওভারে ১৪০/২ (উইলিয়ামসন ৫২*, টেলর ৪৭*; অশ্বিন ২/১৭)।

ফলাফল: নিউজিল্যান্ড ৮ উইকেটে জয়ী।

ম্যাচের সেরা: কাইল জেমিসন।

আরো দেখে নাও :

Mukesh Dhariwal

Active author of BanglaQuiz.in. Quiz and GK enthusiast , Quiz Master

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!