Telegram
History NotesGeneral Knowledge Notes in Bengali

গোল টেবিল বৈঠক – Round Table Conferences

Round Table Conferences (India)

Rate this post

গোল টেবিল বৈঠক – Round Table Conferences

গোল টেবিল বৈঠক : প্রিয় বন্ধুরা, আজ আমরা এই পোস্ট-এ প্রথম, দ্বিতীয় তৃতীয় গোল টেবিল বৈঠক সম্পর্কে কিছু তথ্য জেনে নেবো।

গোল টেবিল বৈঠক কেন হল ?

  • ১৯৩০ সালের ২৭শে মে সাইমন কমিশনের রিপোর্ট প্রকাশিত হলে অনেক রাজনৈতিক নেতারা তার বিরোধিতা করে, যদিও সাইমন কমিশন গঠনের সময় থেকেই বিরোধী মনো ভাব দেখা যায় ভারতীয় নেতাদের কারণ ভারতের সংবিধান সংশোধনের জন্য গঠিত সাইমন কমিশনে কোনো ভারতীয় সদস্যই ছিলোনা। 
  • এই সাইমন কমিশনের রিপোর্টের বিচার বিবেচনার জন্য মোহাম্মদ আলি জিন্না-র অনুরোধে তৎকালীন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী রামসে ম্যাকডোনাল্ড ভারতের রাজনৈতিক দলের নেতাদের নিয়ে এক বৈঠকের আয়োজন করে এই বৈঠকই গোল টেবিল বৈঠক নামে পরিচিত। 

প্রথম গোল টেবিল বৈঠক :

  • মোহাম্মদ আলি জিন্নার অনুরোধে প্রথম ১৯৩০ সালের ১২ই নভেম্বর ভারতের রাজনৈতিক নেতাদের যে বৈঠক আয়োজিত হয়েছিল তাই প্রথম গোল টেবিল বৈঠক নামে পরিচিত। 
  • প্রথম গোল টেবিল বৈঠক আয়োজিত হয়েছিল লন্ডনের হাউস অফ লর্ডস-এ এবং এতে তৎকালীন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী রামসে ম্যাকডোনাল্ড সভাপতিত্ব করেন। 

অংশগ্রহণকারী :

  • মুসলিম লীগের হয়ে বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন ফজলুল হক, আগা খান, মোহাম্মদ আলি জিন্না প্রমুখেরা। 
  • এছাড়াও ছিলেন ডঃ বি.আর. আম্বেদকর, স্যার তেজ বাহাদুর সাপ্রু, ভি.এস. শ্রীনিবাস শাস্ত্রী, কে.টি. পাউল, সর্দার উজ্জ্বল সিং সহ মোট ৫৮ জন সদস্য ভারতের হয়ে এই বৈঠকে অংশগ্রহণ করেছিলেন। 
  • জাতীয় কংগ্রেস থেকে কেউই এই বৈঠকে অংশগ্রহণ করেনি। 

প্রথম গোল টেবিল বৈঠকের তাৎপর্য / ফলাফল :

  • প্রথম গোলটেবিল বৈঠক ১৯শে জানুয়ারী ১৯৩১ পর্যন্ত চলে।
  • নতুন সংবিধানের সংস্কারের ক্ষেত্রে বিভিন্ন আলোচনা ও সংশোধনীর পর অনেকেই সম্মত হয়েছিলেন কিন্তু কিছুই বাস্তবায়িত হয়নি কারণ জাতীয় কংগ্রেস এই বৈঠকে অংশগ্রহণ করেনি। 
  • এই সম্মেলন ব্যর্থ হিসাবে বিবেচিত হয়েছিল।
  • ব্রিটিশ সরকার ভারতের রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ সম্পর্কে যে কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে জাতীয় কংগ্রেস পার্টির গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা বুঝতে পেরেছিল।

দ্বিতীয় গোল টেবিল বৈঠক :

  • গান্ধীজি এবং ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসে পরবর্তী ক্ষেত্রে গোল টেবিল বৈঠকে অংশগ্রহণে সম্মতি জানালে ৭ই সেপ্টেম্বর ১৯৩১ থেকে ১লা ডিসেম্বর ১৯৩১ পর্যন্ত লন্ডনে দ্বিতীয় গোলটেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।
  • পূর্বে আয়োজিত ব্যর্থ প্রথম গোল টেবিল বৈঠকের অমিমাংসিত বিষয়-বস্তু নিয়ে আলোচনার জন্য শেষ পর্যন্ত জাতীয় কংগ্রেস সম্মতি জানায়। 
  • প্রথম গোল টেবিল বৈঠকের সময় আইন অমান্য আন্দোলনে ব্রিটিশ সরকারের কোনো প্রতিক্রিয়া না থাকায় গান্ধীজি তাতে অংশগ্রহণ করেননি। 
  • কিন্তু ১৯৩১ সালে ৫ই মার্চ গান্ধী-আরউইন চুক্তির মাধ্যমে আইন অমান্য আন্দোলন সাময়িক ভাবে শেষ হলে জাতীয় কংগ্রেস দ্বিতীয় গোল টেবিল বৈঠকে অংশগ্রহণে রাজি হয়। 

অংশগ্রহণকারী :

  • জাতীয় কংগ্রেসের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেন গান্ধীজি ও ভারতীয় মহিলাদের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেন সরোজিনী নাইডু। 
  • আগের সম্মেলনের মতোই সভাপতিত্ব করেন  ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী রামসে ম্যাকডোনাল্ড। 
  • এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন মদন মোহন মালব্য, ঘনশ্যাম দাস বিড়লা, মুহম্মদ ইকবাল, ডঃ বি আর আম্বেদকর, মহীশূরের স্যার মির্জা ইসমাইল দিওয়ান, এস কে দত্ত এবং স্যার সৈয়দ আলী ইমাম প্রমুখেরা। 

দ্বিতীয় গোল টেবিল বৈঠকের তাৎপর্য / ফলাফল :

  • প্রথম এবং দ্বিতীয় গোল টেবিল বৈঠকের মধ্যে প্রধান পার্থক্য ছিল যে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস দ্বিতীয় সম্মেলনে অংশগ্রহণ করছিল। এটি ছিল গান্ধী-আরউইন চুক্তির অন্যতম ফলাফল।
  • আরেকটি পার্থক্য ছিল যে আগেরবারের মতো, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ম্যাকডোনাল্ড শ্রম সরকার নয়, একটি জাতীয় সরকারের নেতৃত্বে ছিলেন। কারণ বৈঠকের প্রায় দুই সপ্তাহ আগেই ব্রিটেনে লেবার পার্টির পতন হয়েছিল।
  • ব্রিটিশরা সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের জন্য পৃথক নির্বাচনের ব্যবস্থা করে ভারতে সংখ্যালঘুদের প্রতিনিধিত্ব করার জন্য একটি সাম্প্রদায়িক অধিকার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। গান্ধীজি এর বিরুদ্ধে ছিলেন।
  • এই সম্মেলনে, গান্ধী এবং আম্বেদকর অস্পৃশ্যদের জন্য পৃথক নির্বাচকমণ্ডলীর বিষয়ে ভিন্নমত পোষণ করেন। গান্ধীজি ভেবে ছিলেন এই পৃথক নির্বাচকমণ্ডলী গঠনের ফলে দেশের হিন্দু ও অস্পৃশ্য সম্প্রদায়ের মধ্যে ঘোরতর ভেদাভেদ সৃষ্টি হবে। এই সমস্যাটি ১৯৩২ সালের পুনা চুক্তির মাধ্যমে সমাধান করা হয়েছিল।
  • অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে অনেক বিমতের কারণে দ্বিতীয় গোল টেবিল বৈঠককে ব্যর্থ বলে মনে করা হয়েছিল।
  • জাতীয় কংগ্রেস সারা দেশের হয়ে কথা বলার দাবি করলে, অন্যান্য অংশগ্রহণকারী এবং অন্যান্য দলের নেতারা এই দাবির প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন।

তৃতীয় গোল টেবিল বৈঠক :

  • তৃতীয় গোলটেবিল বৈঠক ১৭ই নভেম্বর ১৯৩২ থেকে ২৪শে ডিসেম্বর ১৯৩২-এর মধ্যে অনুষ্ঠিত হয়।
  • ব্রিটেনের লেবার পার্টি ও ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস এই সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেনি। 

অংশগ্রহণকারী :

  • এই সম্মেলনে মোট ৪৬ জন প্রতিনিধি অংশ নেন।
  • তৃতীয় গোল টেবিল বৈঠকের কিছু অংশগ্রহণকারীরা হলেন আগা খান, ডঃ বি আর আম্বেদকর, তেজ বাহাদুর সাপ্রু প্রমুখেরা। 

তৃতীয় গোল টেবিল বৈঠকের তাৎপর্য / ফলাফল :

  • এই সম্মেলনেও তেমন কিছু লাভ হয়নি। 
  • এই সম্মেলনের সুপারিশগুলি ১৯৩৩ সালে একটি White Paper-এ প্রকাশিত হয়েছিল এবং পরে ব্রিটিশ পার্লামেন্টে আলোচনা করা হয়েছিল।
  • সুপারিশগুলি বিশ্লেষণ করা হয়েছিল এবং এর ভিত্তিতে ১৯৩৫ সালের ভারত শাসন আইন পাস করা হয়েছিল।

এরকম আরও কিছু পোস্ট :

তেভাগা আন্দোলন টিকা – Tebhaga Movement

আইন অমান্য আন্দোলন – Civil Disobedience Movement

বিভিন্ন বিপ্লবী সমিতি ও প্রতিষ্ঠাতা তালিকা – PDF

To check our latest Posts - Click Here

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!
Nobel 2022 Winner List in Bengali Current Affairs in Bangla – 26th October 2022 বাংলাদেশের নব নির্মিত পদ্মা সেতু – জেনে নিন আকর্ষণীয় তথ্য